Popular Posts

Tuesday, July 15, 2014

Vacancy available for the position: Coordinator - Executive Health Check-up

SQUARE Hospitals is all about making a difference. A difference in terms of qualitative standard of local health services, professional excellence and the overall health care culture of the country. The Hospital seeks quality professionals for a variety of positions.

If you are driven by passion, join us to make the difference.

Vacancy available for the following position:

Coordinator - Executive Health Check-up
v  MBBS Degree with Post-Graduate Qualification in any branch of Medicine.

Candidates are requested to apply with a CV, one recent passport size photograph and copies of all academic and experience certificates and mention the position on top of the envelope.

Application should be addressed to:


General Manager
Department of Human Resources
SQUARE Hospitals Ltd.
18/F, Bir Uttam Qazi Nuruzzaman Sarak
West Panthapath, Dhaka-1205.




Tuesday, January 21, 2014

Carrier with SQUARE

SQUARE Hospitals is all about making a difference. A difference in terms of qualitative standard of local health services, professional excellence and the overall health care culture of the country. The Hospital seeks quality professionals for a variety of positions.
If you are driven by passion, join us to make the difference.

Vacancy available for the following positions:

Consultant: Urology, General Surgery, Radiation Oncology, Neuro Surgery, Cardiac Surgery

v  Candidates must have appropriate Post-Graduate qualification (FCPS, MD, MS) or be US board certified or have appropriate fellowship/membership from Royal Colleges or equivalent. Seven (7) years of experience after completion of Post-Graduate is desirable.

Candidates are requested to apply with a CV, one recent passport size photograph and copies of all academic and experience certificates and mention the position on top of the envelope.



Application should be addressed to:

General Manager
Department of Human Resources
SQUARE Hospitals Ltd.
18/F, Bir Uttam Qazi Nuruzzaman Sarak

West Panthapath, Dhaka-1205.
Email : info@squarehospital.com

Wednesday, November 13, 2013

স্কয়ার হসপিটাল সেন্টার ফর বোন, জয়েন্ট স্পাইন এ্যান্ড রিউম্যাটোলজী

আঘাত ব্যাতীত অন্য কোন কারণে অস্থিসন্ধিতে ব্যাথা হলে আমরা অনেক সময় তাকে বাতের ব্যাথা বা ইংরেজিতে রিউম্যাটিক পেইন বলে থাকি। এই সমস্ত ব্যাথাকে ঢালাওভাবে বাত হিসেবে চালিয়ে দিলেও, অনেক কারণেই এই ব্যাথা হতে পারে, আবার অপর পক্ষে বাত ও নানা ধরনের হতে পারে।

স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের পরিভাষায় অস্থিসন্ধি, মাংস , রগ এবং তন্তু কলার এই ব্যাথা সমূহের অনেক নাম আছে। যেমন রিউম্যাটোয়েড আর্থ্রাইটিস, রিউম্যাটিক ফিভার, এ্যানকাইলোজিং স্পন্ডিলাইটিস, গাউট, অস্টিও-আর্থ্রাইটিস,  অস্টিও-পোরোসিস, মায়োসাইটিস, টেনোসাইনোভাইটিস, এসএলই এবং আরো অনেক। এই সকল ইংরেজি শব্দের উপযুক্ত বাংলা প্রতিশব্দ না থাকায় সাধারণ মানুষ অনেক সময় বিভ্রান্তির শিকার হন। তবে এর চিকিৎসার জন্য বাত রোগ বিশেষজ্ঞ বা রিউম্যাটোলজিস্ট এর শরনাপন্ন হওয়াই বুদ্ধিমত্তার পরিচায়ক।

রিউম্যাটোয়েড আর্থ্রাইটিস একটি দীর্ঘ মেয়াদী রোগ। সঠিক চিকিৎসা না করলে অনেক সময় রোগী বিকলাঙ্গও হয়ে যেতে পারে।  অস্থিসন্ধির ভিতরে সাইনোভিয়াম নামে একটি পর্দা থাকে। রিউম্যাটোয়েড আর্থ্রাইটিস-এ এই সাইনোভিয়ামে প্রদাহ হয়। গড়ে প্রতি ১০০ জনে ৩-৪ জন এবং পুরুষের তুলনায় মহিলাদের প্রায় দিগুণ হারে এই অসুখ হয়ে থাকে। হাতের আঙুলসহ যে কোন অস্থিসন্ধিতে ব্যথা এবং সকালের দিকে আড়ষ্ঠতা দেখা দেয়া এই রোগের লক্ষণ সমূহের অন্যতম।

সে সকল অসুখে মানূষ বিকলাঙ্গ হয়ে পড়ে সে রকম  প্রথম ১০ টি অসুখের মধ্যে অস্টিও-আর্থ্রাইটিস একটি। এই অসুখ সাধারণত: বয়স্ক ব্যাক্তিদের মাঝে দেখা দেয়। আমাদের শরীরের অস্থিসন্ধিতে অবস্থিত তরুনাস্থির ক্ষয় থেকেই এই রোগের উৎপত্তি। অধিক চাপের মধ্যে থাকা অস্থিসন্ধি যেমন হাঁটু, উরুসন্ধি, মেরুদন্ড সবচেয়ে বেশি এ রোগে আক্রান্ত হয়। 

বাতজ্বর অত্যন্ত খারাপ অসুখ। স্ট্রেপ্টোকক্ক্াস নামক এক জীবাণূর আক্রমণে শরীরে এক ধরণের প্রতিরোধক পদার্থ তৈরী হয় যা অস্থিসন্ধি এবং হৃৎপিন্ডের প্রভূত ক্ষতি সাধন করতে পারে।
এ্যানকাইলোজিং স্পন্ডিলাইটিস-এ মেরুদন্ড ও অন্যান্য অস্থিসন্ধিতে প্রদাহ হয়; ক্ষেত্র বিশেষে মেরুদন্ডের সচলতাকে ভীষনভাবে বাধাগ্রস্থ করে বলে এক পর্যায়ে রোগী পঙ্গু হয়ে যেতে পারে।  
রক্তে আতিরিক্ত মাত্রায় ইউরিক এসিড বৃদ্ধি পাবার কারণে গাউট নামে একটি তীব্র ব্যাথা সৃষ্টিকারী বাত হতে পারে যা পায়ের আঙুল বিশেষ করে বুড়ো আঙুলকে আক্রমণ করে থাকে। এই ইউরিক এসিড শরীরের বিভিন্ন অংশে জমা হয়েও নানা অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে। 

উপরোক্ত কারণগুলো ছাড়াও অস্টিওপোরোসিস অর্থাৎ অস্থি পাতলা হয়ে যাওয়া, মাংসপেশী, রগ, সাইনোভিয়াম এবং তন্তুকলায় প্রদাহ সহ অনেক কারণে আমাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যাথা হতে পারে। বিষেশজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ মত সঠিক রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা ,উপযুক্ত ব্যায়াম এবং খাদ্যাভ্যাসের  মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের এই জটিল ব্যাধি সমূহের নিরাময় এবং নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব।  


বড়দের মতো শিশুরাও অনেক সময় বাতরোগে আক্রান্ত হয়। এই অসুখটি শনাক্ত করা সহজ নয়, চিকিৎসাও দীর্ঘমেয়াদী। শৈশবকালীন বাত বা জুভেনাইল ইডিওপেথিক আর্থ্রাইটিস হলে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিশেষ করে অস্থিসন্ধি বা হাড়ের সংযোগস্থল ফুলে যায় ও একটানা দীর্ঘ দিন ধরে ব্যাথা হতে থাকে। বিশেষজ্ঞ রিউমেটোলজিস্ট ছাড়া এ রোগের চিকিৎসা সম্ভব নয়।

যে কোন বয়সী আর্থ্রাইটিস রোগে আক্রান্ত রোগীদের রোগ যথাযথভাবে নির্ণয়, রোগের সুচিকিৎসা ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় একজন রিউম্যাটোলজিস্ট-এর ভুমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মনে রাখতে হবে আর্থ্রাইটিস রোগে শরীরের  জয়েন্ট, হাড়, মাংস পেশী এমনকি দেহের অভ্যন্তরের কতগুলো বিশেষ অঙ্গ যেমন কিডনি, শ্বাষতন্ত্র, ধমনি এবং মস্তিস্ক মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে থাকে। যথাযথ চিকিৎসা ও পরবর্তী ফলোআপ এসকল রোগ নিয়ন্ত্রনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

একজন রিউম্যাটোলজিস্ট অত্যন্ত  দক্ষতার সাথে ও  সুনিপূণ ভাবে নিন্মোক্ত কাজ গুলো করে থাকেন


# বাত  রোগের উপসর্গ ও লক্ষন সমুহ যথাযথভাবে  মূল্যায়ন

# অস্থি সন্ধির অস্বাভাবিকতা চিহ্নিতকরণ
# শারীরিক ও মানসিক সুস্থতা এবং স্বনির্ভর কর্ম ক্ষমতা নিশ্চিতকরন
# রেডিওলজি ও প্যাথোলজী পরীক্ষার রিপোর্ট মূল্যায়ন এবং
# যথাযথ চিকিৎসা পদ্ধতি বাছাই


সাধারন পরামর্শ সমূহ

নির্দেশ মত নিয়মিত ব্যায়াম করবেন।
আক্রান্ত স্থানে অল্প গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে শ্যাক দিবেন।
মেরুদন্ড ও ঘাড় বাকা করে (নিচু হয়ে) কোন কাজ করবেন না।
যে কোন এক দিকে কাত হয়ে হাতে ভর দিয়ে শোয়া থেকে উঠবেন।
পিড়া, মোড়ায় না বসে পিঠে সাপোর্ট দিয়ে চেয়ারে বসবেন।
হাটু ভাঁজ করে মেঝেতে বসা উচিত নয়।
ফোমের বিছানায় না শুয়ে শক্ত তোষক দেয়া খাটে শোয়া উচিত নয়।
দাঁড়িয়ে রান্না করবেন, প্রয়োজন হলে চেয়ারে বসবেন।
উপুড় হয়ে ঘুমাবেন না।
কোন জিনিস তোলার সময় সোজা হয়ে বসে তুলুন।
ঝরনায় অথবা সোজা হয়ে বসে গোসল করবেন।
ব্যাথা বেশী থাকা অবস্থায় কোন প্রকার ব্যায়াম করবেন না।
মোটা ব্যাক্তির শরীরের ওজন কমাতে হবে।
সিঁড়িতে উঠার সময় ধীরে ধীরে হাতল ধরে সোজা হয়ে উঠবেন।
ঝাকিপূর্ণ যানবাহন অথবা রাস্তা ব্যবহার পরিহার করুন।
উচু কমোডে বসে পায়খানা/প্রস্রাব করবেন।
দীর্ঘ সময় যাবৎ দাড়িয়ে কিংবা বসে থাকবেন না।
শোবার সময় একটি পাতলা নরম বালিশ দ্বারা ঘাড়ে সাপোর্ট দিয়ে ঘুমাবেন।
হাটার সময় নির্দেশমত হাতে লাঠি ব্যবহার করবেন।
গাড়িতে চড়ার সময় সিট বেল্ট ব্যবহার করবেন।
অনেক্ষন ধরে হাঁটা বা দৌড়ানো ঠিক নয়।
জুতা ও সেন্ডেলে উচু হিল পরিহার করুন।
কলার/করসেট-বেল্ট দেয়া হলে তা ভ্রমনের সময় অবশ্যই পরে নিবেন, ঘুমানোর ও ব্যায়াম করার সময় খুলে নিবেন।

স্কয়ার হসপিটাল সেন্টার ফর বোন, জয়েন্ট স্পাইন এ্যান্ড রিউম্যাটোলজী

হাড়, মাংশপেশী, অস্থিসন্ধি ও মেরুদন্ডের ব্যাথাসহ সব ধরনের বাত-ব্যাথার  আধুনিক চিকিৎসা প্রদানে স্কয়ার হসপিটালেই রয়েছে দক্ষ রিউম্যাটোলজিস্ট, অর্থোপেডিক্স বিশেষজ্ঞ, স্পাইন সার্জন, ফিজিওথেরাপিস্ট ও ডায়েটেশিয়ানের সম্মিলিত প্রয়াস। 

জেনারেল রিউম্যাটোলজী, ওস্টিও-আর্থ্রাইটিস, রিউম্যাটোয়েড আর্থ্রাইটিস ও আইএলডি, সোরীয়াটিক আর্থ্রাইটিস, সিস্টেমিক লুপাস এরিথেমাটোসাস (এসএলই) সহ অনান্য কানেক্টিভ টিস্যু ডিজিজ, ভাস্কুলাইটিস, পলিমায়োসাইটিস এবং ডার্মাটোমায়োসাইটিস, ফাইব্রোমায়্যালজিয়া, এ্যাংকাইলোজিং স্পন্ডিলাইটিস, ওস্টিও-পরোসিস এবং বাত ও বাতজনিত ব্যাথাসহ যে কোন রোগের সমন্বিত ও উন্নত চিকিৎসা পাচ্ছেন আপনার প্রিয় স্কয়ার হসপিটালেই।

আমাদের রয়েছে রোগ নির্ণয়ের সর্বাধুনিক ব্যবস্থা যেমন: অটো-ইমিউন প্রোফাইল, ভিটামিন ডি লেভেল, বিএমডি, ইএমজি, এনসিভি, সিটিস্ক্যান ও এমআরআই সহ সবধরনের ডায়াগনোসিস সুবিধা।

এছাড়াও রয়েছে 

   জয়েন্ট এ্যান্ড টেন্ডন ইনজেকশন (আল্ট্রাসনো গাইডেড এবং গাইডেড ছাড়া)
   দক্ষ ফিজিওথেরাপিস্টদের সরাসরি তত্ত্বাবধানে ব্যায়াম
   সাইকোলজিস্ট ও ডায়েটারি কাউন্সিলিং সুবিধা
   দীর্ঘমেয়াদি বাত ব্যাথার সমন্বিত চিকিৎসা সেবা 
   হাড় ক্ষয়ে যাওয়া রোগের সুচিকিৎসা 
   গর্ভকালীন আর্থ্রাইটিস ও এসএলই- এর  চিকিৎসা সেবা
   শৈশবকালীন বাত ও ব্যাথা চিকিৎসা
   বায়োলজিক্যাল ও ইমিউনোথেরাপি (মেবথেরা, হিউমিরা, একটেমরা এবং 
   ইমিউনোগ্লে­াবুলিনস্) 
   সকল প্রকার এলার্জী নির্ণয় ও চিকিৎসা

সার্জারী  সার্ভিস
   
# হাটু এবং কোমরের অস্থিসন্ধি রিপ্লে­সমেন্ট 
# স্পাইন সার্জারী
# ডিস্ক ও টেন্ডন রিপেয়ার 

কনসাল্টেশন সার্ভিস 
# রিউম্যাটোলজিস্ট
# ফিজিক্যাল মেডিসিন
# নি এ্যান্ড হিপ সার্জন 
# জেনারেল অর্থোপেডিক্স
# স্পাইন সার্জন
# ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট 
# ডায়েটেশিয়ান সার্ভিসেস 
# ফিজিওথেরাপি সার্ভিসেস 



Dr Zubayer Ahmed

Associate Consultant
Rheumatology Centre

Monday, September 23, 2013

হৃদরোগ উচ্চ রক্তচাপ ও কিছু ভ্রাšত ধারণা

‰`wbK mgKvj : 21/09/2013

ü`‡ivM D”P i³Pvc I wKQy åvš— aviYv

জনসাধারণের মাঝে বেশ কিছু ধারণা ও প্রচলিত চিকিৎসা চালু আছে। আসুন জেনে নিই এগুলো কতখানি সঠিক।

বুক ব্যথা

আমাদের সবারই ধারণা, হার্টের ব্যথা বুকের বাঁদিকে হয়। কিন্তু আসলে হার্টের ব্যথা সাধারণত বুকের মাঝখানে হয়। কখনও কখনও সামান্য একটু বাঁদিকে অনুভূত হয়। যে ব্যথা বাম নিপল বা বাম বগলের নিচে অনুভূত হয়থ তা ৯৯ ভাগ নিশ্চিত যে এটা হার্টের ব্যথা নয়। সবাই বুকের বাঁদিকে ব্যথা হলেই ভয় পেয়ে যান হার্টের ব্যথা ভেবে। আমাদের একটা কথা মনে রাখতে হবে যে, বুকে হার্ট ছাড়াও আরও অনেক প্রত্যঙ্গ (অর্গান) থাকে, যেমনথ ফুসফুস, খাদ্যনালি, প্রধান ধমনি (এওর্টা), হৃদপি ও ফুসফুসের ঝিল্লি, বুকের দেওয়ালের মাংস, হাড় ও ওপরের চামড়া ইত্যাদি সবকিছু থেকে ব্যথা হতে পারে, যা কিনা বুকেই অনুভূত হয়। তা ছাড়া পিত্তথলি (গলব্লাডার), যকৃৎ (লিভার) ও পাকস্থলীর ব্যথাও বুকের নিম্নাংশে অনুভূত হতে পারে।

গ্যাস ও হার্ট অ্যাটাক

একজন রোগী সেদিন আমাকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘হার্ট অ্যাটাক নাকি গ্যাস থেকে হয়’ আমি বললাম, ‘সেটা কী রকম আমাকে একটু বুঝিয়ে বলুন।’ তিনি তখন বললেন, ‘পেটে অধিক গ্যাস তৈরি হয়ে তা ওপরে উঠে বুকে অত্যধিক চাপের সৃষ্টি করে হার্ট অ্যাটাক ঘটায়।’ আমি তখন তাকে বুঝিয়ে বললাম, ‘না, এটা ঠিক নয়। হার্ট অ্যাটাকের সঙ্গে গ্যাসের কোনো সম্পর্ক নেই। হার্ট অ্যাটাক হয় হার্টের মাংসপেশিতে রক্ত বয়ে নিয়ে যাওয়া ধমনিতে হঠাৎ রক্ত জমাট বেঁধে রক্ত চলাচল বন্ধ হওয়ার কারণে। এখানে গ্যাসের কোনো ভূমিকা নেই।’

এ রকম গ্যাসের কথা ভেবে অনেকেই হার্ট অ্যাটাকের পরে বুকের ব্যথাকে উপেক্ষা করে তথাকথিত গ্যাসের বড়ি (রেনিটিডিন বা ওমেপ্রাজল) বা অ্যান্টাসিড খান। ওদিকে হার্টের যথেষ্ট ক্ষতিসাধন হয়ে যায়। আমার কাছে নারায়ণগঞ্জ থেকে একজন যুবক বয়সের রোগী আসেন শ্বাসকষ্ট নিয়ে। তিনি দু’বার বুকের ব্যথাকে গ্যাসের ব্যথা হিসেবে উপেক্ষা করেন। এরপর তিনি যখন শ্বাসকষ্ট নিয়ে ওখানকার একটি ক্লিনিকে যান, তখন তাকে হাঁপানি রোগী হিসেবে চিকিৎসা প্রদান করে। ওখানে দু’দিন রাখার পরও কোনো উন্নতি না হওয়ায় তার আত্মীয়স্বজন আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আমরা তখন তাকে সিসিইউতে ভর্তি করে তার ডায়াগনসিস করি ‘হার্ট ফেইলিউর’ এবং সে অনুযায়ী চিকিৎসা করার পরে উন্নতি হয়। এই কাহিনীটি বলার উদ্দেশ্য হলো, গ্যাসের ব্যথা ভেবে উপেক্ষা করাতে তার ব্যাপারটা বেশ জটিল হয়ে যায়। এতে প্রাথমিক চিকিৎসক রোগটি ধরতে না পেরে এজমা রোগের চিকিৎসা প্রদান করেন। এ ধরনের রোগী আমরা প্রায়ই পেয়ে থাকি।

হার্টফেল ও হঠাৎ মৃত্যু

‘হার্টফেল’ নিয়েও আমাদের ভুল ধারণা আছে। কেউ হঠাৎ মারা গেলে সবাই বলে থাকি ‘হার্টফেল’ করে মারা গেছেন। মেডিকেলের পরিভাষায় একে বলা হয় ঝঁফফবহ ফবধঃয বা হঠাৎ মৃত্যু। এই হঠাৎ মৃত্যু অনেক কারণে হতে পারে, যেমনথ হার্ট অ্যাটাক, ভেন্ট্রিক্যুলার অ্যারিদমিয়া, ব্রেইন স্ট্রোক ইত্যাদি। হার্ট ফেইলিউর হলো যখন হৃদপি শরীরের চাহিদা অনুযায়ী রক্ত পাম্প করতে ব্যর্থ হয়।

হার্ট অ্যাটাক ও ব্রেইন স্ট্রোক

আরেকটি শব্দ নিয়ে প্রায়ই বিভ্রান্তি ঘটে তা হলো ‘স্ট্রোক’। সবাই বলেন, ‘হার্ট স্ট্র্রোক’ করেছে। আসলে স্ট্রোক হয় মস্তিষ্কে বা ব্রেইনে। হার্টে হয় অ্যাটাক। এতে সমস্যা যেটা হয় তা হলো, যখন কোনো ডাক্তারের কাছে হার্ট অ্যাটাক বোঝাতে গিয়ে স্ট্রোক বলা হয়, তখন সেই ডাক্তার বোঝেন ব্রেইনের সমস্যা। আবার অনেকের ধারণা, ব্রেইন স্ট্র্রোক হার্ট অ্যাটাক থেকে হয়। তাই অনেক সময়েই স্ট্রোকের রোগীকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যান। ফলে রোগীর সুচিকিৎসা কিছুটা বিলম্বিত হয়। এ ধরনের বিভ্রান্তি এড়াতে হলে মেডিকেলের পরিভাষা বর্জন করে সাধারণ ভাষায় বর্ণনা করা ভালো। তা না হলে রোগ নির্ণয়ে সমস্যা হয়।

কাঁচা বা ভাজা লবণ

আমাদের অনেকেরই একটি ধারণা আছে যে, লবণ ভেজে বা রান্না করে খেলে লবণের যে ক্ষতিকারক দিক আছে তা নষ্ট হয়ে যায় এবং শরীরের আর কোনো ক্ষতি করতে পারে না। কিন্তু এটি একটি ভুল ধারণা। আর এ ধারণার জন্ম হয়েছে ডাক্তারদের কথা থেকে। আমরা যখন কোনো রোগীকে লবণ খেতে নিষেধ করি তখন সাধারণত বলে থাকি, ‘কাঁচা লবণ খাবেন না।’ অর্থাৎ পাতে আলাদা লবণ খাবেন না। কিন্তু রোগীরা ভাবেন, ‘ডাক্তার সাহেব তো কাঁচা লবণ খেতে নিষেধ করেছেন। লবণ ভেজে নিলে তো আর কাঁচা থাকছে। কাজেই ভেজে খেলে অসুবিধা নেই।’ আসল কথা হলোথ দৈনিক মোট যে পরিমাণ লবণ খাওয়া হয়, তা থেকে কিছু কম খাওয়া। পাতে আলাদা লবণ না খেলে অনেকটা লবণ খাওয়া কমে যায়। আর এটুকু কমলেই উচ্চ রক্তচাপ, হার্ট ফেইলিউর ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণে আনা যায় অল্পমাত্রায় ওষুধ সেবনের মাধ্যমে। লবণ যেভাবেই খাওয়া হোক না কেন, তা লবণই থাকে। আর এর ক্ষতিকারক দিকগুলো তখনই নষ্ট হবে যখন এটা আর লবণ থাকবে না।

তেঁতুলের পানি বা লেবুর রস এবং উচ্চ রক্তচাপ ও রক্তের চর্বি

আরেকটি প্রমাণহীন ধারণা হলো, তেঁতুলের পানি বা লেবুর রস পান করলে উচ্চ রক্তচাপ কমে আসে বা নিয়ন্ত্রণে আসে এবং রক্তের চর্বি কেটে যায়। কিন্তু তা হয় না। আর এটা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিতও নয়। বরং তেঁতুলের পানি বা লেবুর রস পান করলে গলাজ্বলা, বুকজ্বলা ও টক ঢেঁকুর ওঠে। তখন রোগীরা আরও ঘাবড়ে যান যখন বুক বা গলাজ্বলার কারণে এবং মনে করেন যে, এটা হার্টের ব্যথা।

অতএব, আসুন ওপরের আলোচিত ভ্রান্ত  ধারণা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে সুস্থ থাকি এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিই।

ডা. আবদুল্লাহ আল জামিল
ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজিস্ট, স্কয়ার হাসপাতাল

Monday, June 10, 2013

Square Hospital Doctor's Chamber




Watch SQUARE Hospital Doctor's Chamber,
Every Friday, 5:00pm
Only on Maasranga Television

Saturday, May 4, 2013

Career with SQUARE

SQUARE Hospitals is all about making a difference. A difference in terms of qualitative standard of local health services, professional excellence and the overall health care culture of the country. The Hospital seeks quality professionals for a variety of positions.
If you are driven by passion, join us to make the difference.

Vacancies available for the following disciplines:

Consultant: Neuro-Medicine, Emergency Medicine, Urology, Neurosurgery, Orthopedics & General Surgery.

v  Candidates must have appropriate Post-Graduate qualification (FCPS, MD, MS) or be US board certified or have appropriate fellowship/membership from Royal Colleges or equivalent. Seven (7) years of experience after completion of Post-Graduate is desirable.

Specialist: General Surgery, Urology, Neurosurgery, Gastroenterology.

v  Appropriate Post-Graduate qualification, with at least One (1) year of experience after completion of Post Graduate certification.

Candidates are requested to apply with a CV, one recent photo and copies of all academic and experiential certificates and mention the position on top of the envelope.

Application should be addressed to:

General Manager
Department of Human Resources
SQUARE Hospitals Ltd.
18/F, Bir Uttam Qazi Nuruzzaman Sarak, West Panthapath, Dhaka-1205.
Email: info@squarehospital

Tuesday, April 23, 2013

সন্তানহীন দম্পতিদের নিয়ে বৈজ্ঞানিক কর্মশালা


সম্ভাবনার দ্বার সুপ্রসারিত হোক


আগামী ৩০ এপ্রিল বেলা ৩ টায় স্কয়ার হসপিটালের অডিটরিয়ামে দেশে প্রথমবারের মত আয়োজিত হতে যাচ্ছে সন্তানহীন দম্পতিদের নিয়ে বৈজ্ঞানিক কর্মশালা। 

সন্তান লাভের আশায় বিভিন্ন সেন্টারের চিকিৎসা গ্রহন করে আশানুরূপ ফল না পেয়ে যারা মনোকষ্টে ভুগছেন তাদের জন্যই এ কর্মশালার আয়োজন করেছে স্কয়ার ফার্টিলিটি সেন্টার।

বন্ধত্ব্য বিষয়ে সব ধরনের ভুল ধারণা নিরসনের জন্য আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিশেষজ্ঞকে সরাসরি প্রশ্ন করে জেনে নিন কিভাবে আপনার সাফল্য ধরা দিবে

বন্ধত্ব্য সম্পর্কিত আপনাদের প্রশ্নের উত্তরে সরাসরি পরামর্শ দিবেন
ড: সুরেশ কাটেরা, বিশিষ্ট এমব্রায়োলজিস্ট ও আইভিএফ কনসাল্টেন্ট (যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, বেলজিয়াম, মধ্যপ্রাচ্য ও ভারতে দীর্ঘ ৩০ বৎসরের পেশাগত অভিজ্ঞতা সম্পন্ন) এবং সিংগাপুরের শীর্ষস্থ গ্লেনইগলস হসপিটালের আইভিএফ সেন্টার ও সেন্টার ফর রিপ্রোডাক্টিভ মেডিসিন-এর সাবেক ডিরেক্টর।  

ডা: রেহনুমা জাহান, বিশিষ্ট গাইনোকোলোজিস্ট এবং ইনফার্র্টিলিটি-তে সিংগাপুর ও ভারতে উচ্চতর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত।
স্কয়ার হসপিটালের সৌজন্যে এই কর্মশালায় অংশ গ্রহনেচ্ছুকদের নাম ফ্রী রেজিস্ট্রেশনের জন্য আগামী ২৭ শে এপ্রিলের মধ্যে ০১৭১৬০৪৭৫৫৯ নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হলো।


স্কয়ার ফার্টিলিটি সেন্টার, স্কয়ার হসপিটালস লি; ১৮/এফ, বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক, পশ্চিম পান্থপথ ঢাকা-১২০৫, ফোন: ৮১৫৯৪৫৭, ,

Email: info@squarehospital.com

Tuesday, April 9, 2013

Facilities Available at SQUARE RHEUMATOLOGY Centre

Specialize in the treatment of all forms of arthritis, chronic pain and disorders involving bones, muscles, joint and spine. 

A coordinated 'multidisciplinary' team approach involving Rheumatologist, Physiotherapist, Orthopaedics, Spine surgeons as well as Dietician and State of the Art Physiotherapy setup.




Management of a wide range of arthritis and rheumatologic conditions, including: 
• Osteoarthritis 
• Rheumatoid arthritis and ILD 
• Psoriatic arthritis 
• Psoriasis 
• Systemic Lupus Erythematosus (SLE) and other connective tissue disease, Vasculitis, Polymyositis and Dermatomysitis 
• Fibromyalgia 
• Ankylosing spondylitis, Gout and pseudogout



• Newer and conventional diagnostics including AutoImmune Profile, Vit D level, BMD, EMG and NCV.

• Supervised Biological and Immunotherapy with monitoring.(Mabthera, Actemra, Adalimumab-humira and Immunoglobulins.)

• Pediatric Rheumatology

• Joint and tendon injections (with or without USG guidance)

• Exercise programmes  under direct supervision of physiotherapists.

• Counselling services by psychologists and dieticians

• Care for Arthritis and SLE with Pregnancy

• Comprehensive management of Chronic back pain.

• Osteoporosis management

Sunday, March 24, 2013

We have successfully performed implantation of a dual chamber pace maker in a patient with Dextrocardia (Heart is on the right side rather than its usual left position along with other anomalies).

This type of procedures are technically difficult as the anatomy is different.
This is the 6th case (PPM in patient with Dextrocardia) in our country and -

First time in Square hospital.